রীতেশ জেনেলিয়া, অঙ্গদানের অঙ্গীকার

রীতেশ জেনেলিয়া নিল অঙ্গদানের মত বড় সিদ্ধান্ত! ভিডিও ভাইরাল

রীতেশ দেশমুখ এবং জেনেলিয়া ডি’সুজা হিন্দি চলচ্চিত্র দুনিয়ার অন্যতম জনপ্রিয় দম্পতি। যা প্রত্যেককে অনুপ্রেরণা জোগায়। তাঁদের বাস্তব জীবনের প্রেমের গল্প যেকোনও রোম্যান্টিক সিনেমার চেয়েও ভালো। রীতেশ জেনেলিয়া তুঝে মেরি কসম সিনেমা দিয়ে কেরিয়ার শুরু করেছিলেন এবং সেখানেই এই দম্পতির প্রথম দেখা। সময়ের সঙ্গে সঙ্গে অভিনেতারা একে অপরকে আরও ভালোভাবে চিনতে পেরেছেন এবং কাছাকাছি এসেছেন। এরপর ঘর বাঁধেন তাঁরা। জীবনের অন্যান্য সিদ্ধান্তের মতো এবার রীতেশ ও জেনেলিয়া যৌথভাবে মৃত্যুর পরে অঙ্গদানের সিদ্ধান্ত নিয়েছেন।

রীতেশ বরাবর তাঁর কাজের মাধ্যমে দর্শকদের মুগ্ধ করেছেন এবং সর্বদা তাঁর সেরাটা দেওয়ার চেষ্টা করেছেন। যে কারণে তিনি ভক্তদের কাছ থেকে এতটাই ভালোবাসা এবং সম্মান পেয়েছেন তা বলাই যায়। রীতেশ এবং জেনেলিয়া অঙ্গ দানের প্রতিশ্রুতি নিয়েছেন। তাঁরা এখন কাজের জন্য জাতীয় অঙ্গ এবং টিস্যু ট্রান্সপ্লান্ট অর্গানাইজেশন থেকে প্রশংসাও কুড়িয়েছেন। রীতেশ এর আগে তাঁর ইনস্টাগ্রাম অ্যাকাউন্টে একটি ভিডিয়ো পোস্ট করেছিলেন। যেখানে তাঁরা একটি অঙ্গদান করার জন্য তাঁদের দীর্ঘদিনের প্রতিশ্রুতি নিয়ে আলোচনাও করেন। একইসঙ্গে তিনি বলেন, জীবনে এর চেয়ে বড় উপহার আর কিছু নেই।’

সকলেই দম্পতির ভূয়সী প্রশংসা করছে। একজন লিখেছেন, ‘কারো কাছে ‘জীবনের উপহার’ এর চেয়ে বড় আর কিছুই নেই। জেনেলিয়া এবং আমি আমাদের অঙ্গদান করার প্রতিশ্রুতি দিয়েছি। আমরা আপনাদের সকলকে এই মহান উদ্দেশ্যে যোগ দিতে এবং ‘দ্য লাইফ আফটারলাইফ’-এর পার্ট হতেও অনুরোধ করছি।’

ভিডিয়োতে রীতেশকে বলতে শোনা যায়, ‘আমরা আমাদের অঙ্গদান করার সিদ্ধান্ত নিয়েছি।’ জেনেলিয়া বলেন, ‘হ্যাঁ, আমরা এতটুকু বলতে পারি আমাদের অঙ্গদানের প্রতিশ্রুতি আমাদের জীবনের সবচেয়ে বড় উপহার। এর চেয়ে ভালো উপহার আর কিছু নেই।’

কাজের ক্ষেত্রে, রীতেশকে পরবর্তীতে সোনাক্ষী সিনহার সঙ্গে হরর কমেডি কাকুদা এবং পিল-এ দেখা যাবে। কাকুদার বিষয়ে রীতেশ এর আগে বলেছিলেন, ‘আমি ‘কাকুদা’-র অদ্ভুত এবং উদ্ভট জগতের অংশ হতে পেরে রোমাঞ্চিত। ভিক্টরের ভূমিকায় অভিনয় করে আমাকে আমার অভিনয় ক্ষমতা ফুটিয়ে তোলার আলাদা জায়গা করে দিয়েছিল। এই চরিত্রটি আমি এতদিন যা করেছি তার থেকে অনেকটা আলাদা। এবং এটিতে অভিনয় করতে পারাও উত্তেজনাপূর্ণ বলা চলে। হরর এবং কমেডির মিশ্রণে সূক্ষ্ম ভারসাম্য বজায় রাখা। এবং সোনাক্ষী সিনহা এবং সাকিব সেলিমের মতো প্রতিভাবান সহ-অভিনেতাদের সঙ্গে কাজ করার সুযোগ পেয়ে আমি কৃতজ্ঞ। ‘কাকুদা’ আপনাকে আবেগের রোলারকোস্টার জার্নিতে নিয়ে যাবে এটুকু বলতে পারি।’

Leave a Comment

Your email address will not be published. Required fields are marked *

Scroll to Top