রাইমা-রিয়া, রাইমা সেন, রিয়া সেন

ছোটবেলায় স্কুল পালিয়ে যা করতেন রাইমা-রিয়া!

কলকাতার এক নামকরা স্কুলে পড়তেন অভিনেত্রী রাইমা সেন এবং তাঁর বোন অভিনেত্রী রিয়া সেন। দুই বোনে মিলে স্কুলজীবন দারুণ উপভোগ করেছেন। বহু পড়ুয়ার মতো তাঁরাও স্কুল পালাতেন। তারপর? কী করতেন এই দুই তারকা সন্তান? মা মুনমুন সেন, বাবা ভরত দেববর্মা জানতেন বিষয়টা?

স্কুল পালিয়ে সিনেমা দেখা, ভালবাসার মানুষের সঙ্গে দেখা করতে যাওয়া, কিংবা নিছক ঘুরে বেড়ানো খুব সাধারণ বিষয়। অনেকেই এমনটা করেছেন পড়ুয়াবেলায়। খ্যাতনামীদের জীবনেও কিন্তু স্কুল পালানোর অনেক গল্প রয়েছে। সে রকমই এক গল্প একবার শেয়ার করেছিলেন মহানায়িক সুচিত্রা সেনের নাতনি, মুনমুন সেনের কন্যা রাইমা সেন।

রাইমা-রিয়া, রাইমা সেন, রিয়া সেন
একটি অনুষ্টানে দুই বোন রাইমা-রিয়া ( আর্কাইভ ছবি )

কলকাতার এক নামকরা স্কুলে পড়তেন রাইমা এবং তাঁর বোন অভিনেত্রী রিয়া সেন। দুই বোনে মিলে স্কুল জীবন দারুণ উপভোগ করেছেন। তাঁদের প্রিয় ছিল ট্রাম রাইড। স্কুল পালিয়ে ট্রামে সফর করতে যেতেন রিয়া-রাইমা। চলে যেতেন শহরের এপ্রান্ত থেকে ওপ্রান্তে। তখন তাঁদের কেউ চেনে না। স্কুলের পোশাকেই দুই বোন উঠে পড়তেন ট্রামে। এ যেন ছিল তাঁদের মুক্তি। সেই মুক্তির স্বাদ পেতে প্রায়ই স্কুল বাঙ্ক করতেন রিয়া-রাইমা। সেই ঘটনার কথা কোনওদিনও জানতে পারেননি তাঁদের মা মুনমুন এবং বাবা ভরত দেববর্মা।

এক সাক্ষাৎকারে রিয়া বলেছিলেন ছোটবেলার সেই গোপন কথা। বলেছেন, “রিয়া আর আমি স্কুল পালিয়ে ট্রামে করে ঘুরতাম। আমাদের বাবা-মা মনে হয় এখনও জানেন না। ট্রামে চেপে অনেক শুটিংও করেছি আমি। খুব ভাল লাগে আমার।”

মহানায়িকা সুচিত্রা সেনের সঙ্গে অদ্ভুত সাদৃশ্য রয়েছে রাইমা সেনের চেহারার। মা মুনমুন এবং বোন রিয়ার সঙ্গে চেহারার কমই মিল তাঁর। মুম্বইয়ে বেশি সময় কাটান রাইমা। কিন্তু কলকাতাকে খুব মিস করেন। কলকাতায় তাঁর পরিবারের সঙ্গে সময় কাটাতে চান রাইমা। কলকাতার রাস্তার ঝালমুড়ি, আলু চাট তাঁর প্রিয়। আর প্রিয় ট্রাম। ছোটবেলার মতো তিলোত্তমার বুকে ট্রাম চলতে দেখলে অভিনেত্রী অনায়াসে ফিরে যান তাঁর শৈশবে।

Leave a Comment

Your email address will not be published. Required fields are marked *

Scroll to Top